টিপস এন্ড ট্রিকস

রিফার্বিশড ফোন কেনা কতটা সঠিক সিন্ধান্ত আপনার জন্য? আসুন আলোচনা করি

রিফার্বিশড ফোন

হ্যালো বন্ধুরা, আপনি কি এটিও জানতে চান যে একটি রিফার্বিশডফোন কী এবং আপনার নতুন ফোনের পরিবর্তে একটি রিফার্বিশড ফোন কেনা উচিত কারণ এটি নতুন ফোনের চেয়ে অনেক সস্তা।

আপনি এই পোস্টে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পাবেন, তাই আপনারা সবাই শেষ পর্যন্ত এই পোস্টটি পড়তে থাকুন।

আজ স্মার্টফোনের যুগ তবে স্মার্টফোন কেনার সময় আপনার স্মার্টনেস দেখাতে হবে। আপনি যখন ফোন কিনতে চান, প্রথমে এটি সম্পর্কে গবেষণা করুন এবং এর বৈশিষ্ট্য এবং দাম সম্পর্কে জেনে নিন। বে আপনি কি জানেন যে আপনি যদি নতুন ফোনের বাজেট নিয়ে সমস্যা থাকে, তবে আপনি কম দামে নতুন ফোনের পরিবর্তে একটি নতুন-  রিফার্বিশড ফোন কিনতে পারবেন।

হ্যাঁ, আজকের এই পোস্টে আপনাকে এর সাথে সম্পর্কিত সম্পূর্ণ তথ্য দেওয়া হচ্ছে …

আপনি কি ইথ্যিক্যাল হ্যাকিং শিখতে চান? আমাদের এই আর্টিকেল গুলো পড়ুনঃ

 

রিফার্বিশড ফোন কি

রিফার্বিশড ফোন
রিফার্বিশড ফোন

আপনি নিশ্চয়ই অনেক অনলাইন সাইটে দেখেছেন যে নতুন ফোনের তুলনায় খুব কম দামে একটি রিফার্বিশড ফোন বিক্রি হচ্ছে এবং লোকেরাও এটি কিনে কারণ এটি কম দামে পাওয়া যাচ্ছে। এটা স্বাভাবিক আপনি যদি কম যদি ভালো কোন ফোন পেয়ে থাকেন, তাহলে আপনি অবশ্যয় এটি কিনবেন। কিন্তু তার আগে আপনাকে বুঝতে হবে, রিফার্বিশড ফোন কি?

ধরুন আপনি আমাজন অথবা অন্য কোথাও থেকে একটি ফোন কিনলেন। কেনার পরে আপনি সেটাতে এমন কিছু সমস্যা দেখলেন যেটার জন্য আপনাকে সেটা আবার রিফান্ড করা লাগলো। এখন আপনাকে সেই ফোনের বদলে আবার নতুন কোন ফোন দিবে। আপনি কিন্তু নতুন ফোন পেয়ে গেলেন কিন্তু আপনার সেই সমস্যা হওয়া ফোনটার কি হবে?

এই ফোনটা কোম্পানী আবার ঠিক করে বাজারে ছেড়ে দিবে। যাকে আমরা রিফার্বিশড ফোন বলি। রিফার্বিশড ফোন নতুন হয়, কিন্তু অন্যর কিছু দন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আর মূলত এই কারণে রিফার্বিশড ফোনের দাম কম হয়ে থাকে।

কম্পিউটারের ফ্রি কোর্স করুনঃ

  1. কম্পিউটার কি, এর বৈশিষ্ট্য ও ইতিহাস
  2. কম্পিউটারের বিভিন্ন প্রকার  – Types Of Computer In Bangla.
  3. কম্পিউটারের ব্যবহার – Uses Of Computer In Bangla
  4. কম্পিউটারের সুবিধা এবং অসুবিধা
  5. কম্পিউটার কিভাবে কাজ করে – বাংলাতে কম্পিউটারের কাজ সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য
  6. কম্পিউটারের জেনারেশন | Generations Of Computer In Bangla?
  7. কম্পিউটারের ব্যাসিক যন্ত্রাংশ
  8. কম্পিউটার সফটওয়্যার কি

আপনার কি রিফার্বিশড ফোন কেনা উচিৎ

রিফার্বিশড ফোন
রিফার্বিশড ফোন

এখন আসুন আসল কথা তে। দেখুন রিফার্বিশড ফোন কেনার আগে আপনাকে দামের ব্যাপারে জানতে হবে। ধরূন একটি ফোনের দাম ১৫০০০ টাকা এখন সেই ফোন টাই রিফার্বিশড ভার্শন পাচ্ছেন ১২০০০ টাকাতে তাহলে আপনার টাকা খরচ করে এই ফোন কেনার কোন যুক্তি আসে না। এই ফোনই যদি আপনি ৭-৮ হাজারে পেয়ে যান তবে তা কেনার চিন্তা করে দেখতে পারেন।

তবে আমার পার্সোনাল মতামত আপনার কেনা উচিৎ না। কেননা আমি নিজে কিনে ঠকেছি। একবার যদি কোন স্মার্টফোনে সমস্যা দেখা দেওয়া শুরু করে, তবে সেই ফোনে বারবার সমস্যা দেখা দেয়। যদিও এটা যে হবেই এমন না। কিন্তু কোন এক অজানা কারণে এমনটা হয়ে থাকে। তাই বলি টাকা দিয়ে যদি ফোন কিনতে হয়, তাহলে অরজিনাল ফোন কিনুন।

এর পরেও যদি কারো কেনা হয়ে যায়, তবে চেষ্টা করবেন, ভালো কোন অথরিটি থেকে কেনার।

দিনশেষে এটাই বলতে পারি আমরা, স্মার্টফোন কেনার আগে স্মার্টভাবে দেখে বুঝে কিনুন। তাহলে আপনার কষ্টের টাকা টা হয়তো নষ্ট হবে না। আপনার যদি এই আর্টিকেলটি ভাল লাগে তবে কমেন্ট করে জানাবেন। কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন। আমাদের কমুনিটি আপনাকে সাহায্য করবে। আমাদের গ্রুপের লিংক

Share article:

Permalink:

Comments

  1. রিফার্বিশ ফোন যখন বিক্রয় হয় তখন কি এই তথ্য কোথাও লিখা থাকে?

  2. রিফার্বিশড এবং আনঅফিশিয়াল এর মধ্যে পার্থক্য কী ?

Add your widget here